Wednesday, April 8, 2015

জিহাদের মৃত্যু ‘অপরাধজনক প্রাণহানি’:প্রথম অালো

রাজধানীর শাহজাহানপুরে পরিত্যক্ত পাইপের ভেতর পড়ে শিশু জিহাদের মৃত্যুকে অপরাধজনক প্রাণহানি বলেছে পুলিশ। এ ঘটনায় দুই প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দিয়েছে শাহজাহানপুর থানার পুলিশ। তবে এটি সরাসরি হত্যাকাণ্ড নয় বলে অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহজাহানপুর থানার পরিদর্শক আবু জাফর ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে অভিযোগপত্র দেন। অভিযোগপত্রভুক্ত আসামিরা হলেন শাহজাহা
নপুর রেল কলোনিতে পানির পাম্প স্থাপনের প্রকল্প পরিচালক রেলওয়ের জ্যেষ্ঠ উপসহকারী প্রকৌশলী জাহাঙ্গীর আলম ও প্রকল্পের দায়িত্বে থাকা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এসআর হাউসের মালিক প্রকৌশলী আবদুস সালাম। অভিযোগপত্রে বলা হয়, আসামিদের তত্ত্বাবধানে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এসআর হাউস শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলোনির মৈত্রী সংঘ মাঠের পূর্ব-দক্ষিণ কোণে একটি পানির পাম্পের ঠিকাদারি নিয়ে আনুমানিক ছয় শ ফুট কূপ খনন করে। কিন্তু কূপের মুখ খোলা রেখে কোনো নিরাপত্তার ব্যবস্থা না করে তা দীর্ঘদিন ফেলে রাখে তারা। ফলে শিশু জিহাদ (৩) ওই স্থানে খেলা করতে গিয়ে পাইপের ভেতরে পড়ে মারা যায়। তদন্তে জানা যায়, শিশু জিহাদের মৃত্যু বেপরোয়া বা অবহেলাজনিত কারণে হয়নি। আসামিদের বিরুদ্ধে অপরাধজনক প্রাণনাশের অপরাধের বিষয়ে সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে দণ্ডবিধির ৩০৪ ধারায় অভিযোগপত্র দেওয়া হলো। আসামিদের মধ্যে প্রকৌশলী আবদুস সালাম কারাগারে আটক আছেন। অপর আসামি প্রকৌশলী জাহাঙ্গীর আলম পলাতক। তদন্ত কর্মকর্তা আসামি জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি ও ক্রোকি পরোয়ানার আবেদন করেছেন। মামলায় ২১ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে। গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর বেলা সাড়ে তিনটার দিকে রাজধানীর শাহজাহানপুরে বাসার কাছে রেলওয়ে মাঠের পাম্পের পাইপে পড়ে যায় জিহাদ। প্রায় ২৩ ঘণ্টা পর ২৭ ডিসেম্বর বেলা তিনটার দিকে জিহাদকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এরপর শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহত জিহাদের বাবা নাসির ফকির দণ্ডবিধির ৩০৪/ক ধারায় ‘দায়িত্বে অবহেলায়’ জিহাদের মৃত্যুর অভিযোগে শাহজাহানপুর থানায় প্রকৌশলী জাহাঙ্গীর আলম ও প্রকৌশলী আবদুস সালামকে আসামি করে মামলা করেন। এ ঘটনায় রেল কলোনির পরিত্যক্ত ওই গভীর নলকূপের পাইপে জিহাদ পড়ে যাওয়ার পর রাতেই ওই প্রকল্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। আর পাশেই নতুন গভীর নলকূপ স্থাপন প্রকল্পের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এসআরকে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়। গত ৮ মার্চ আবদুস সালাম আত্মসমর্পণ করে জামিন চাইলে আদালত নামঞ্জুর করেন। আরও পড়ুন মাথায় আঘাত ও পানিতে ডুবে জিহাদের মৃত্যু দেশ কাঁদানো ২৩ ঘণ্টা!